• শিক্ষা

সশরীরে ক্লাস শুরু জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ও সাত কলেজে

  • শিক্ষা
  • ২১ অক্টোবর, ২০২১ ১২:৫৭:৪৬

ছবিঃ সংগৃহীত

নিউজ ডেস্কঃ করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ প্রায় দেড় বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের সশরীরে পাঠদান শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরে এ শ্রেণি পাঠদান শুরু হয়। সশরীরে পাঠদানের পাশাপাশি একইসময়ে অনলাইনেও শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কয়েকটি গুচ্ছে শ্রেণি পাঠদান কার্যক্রম চলবে। এরমধ্যে প্রথম গুচ্ছে শনি ও মঙ্গলবার, দ্বিতীয় গুচ্ছে রবি ও বুধবার এবং তৃতীয় গুচ্ছে সোম ও বৃহস্পতিবার ধারাবাহিকভাবে অনার্স প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় এবং মাস্টার্সের শ্রেণি পাঠদান চলবে।

এ সংক্রান্ত সূচি অধিভুক্ত সব কলেজগুলোতে পাঠিয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। করোনার কারণে সৃষ্ট সেশনজট নিরসনে কোর্সভুক্ত প্রতিটি বিষয়ে বর্ষভিত্তিক ক্লাস শুরু ও শেষ, ফরম পূরণ, পরীক্ষা শুরু ও শেষ এবং ফলাফল প্রকাশের নির্দেশনাও সব প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনা অনুযায়ী, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সেশনজট কমাতে বছরে ১৯৫ দিন শ্রেণি কার্যকাল নির্ধারণ করা হয়েছে। সে অনুযায়ী চলমান সেশনে ভর্তি হওয়া প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা ডিসেম্বর ২০২৪ সালের মধ্যে অনার্স ডিগ্রি সম্পন্ন করবেন। রুটিন মেন্টেইন করতে সংশ্লিষ্ট কলেজগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এদিকে আজ বিকেলে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামও অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুরস্থ ক্যাম্পাসে বিকেল তিনটায় উপাচার্যের কনফারেন্স রুম থেকে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে এ প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে মিল রেখে একইদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজে সশরীরে ক্লাস শুরু হয়েছে।

জানা গেছে, বর্তমানে অধিভুক্ত সাত কলেজে স্নাতকের প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা চলছে। ফলে এখন স্নাতক চতুর্থ বর্ষ এবং স্নাতকোত্তরের ক্লাস চলবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাত কলেজের সমন্বয়ক ও ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ আই কে সেলিম উল্লাহ খন্দকার বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে সাত কলেজে সশরীরে ক্লাস কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এর পাশাপাশি স্থগিত থাকা পরীক্ষাগুলো নিয়মিত আয়োজন করা হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাস ও পরীক্ষা নেওয়া হবে।

মন্তব্য ( ০)





  • company_logo